আমি প্রবাসী – Ami Probashi

আসসালামু আলাইকুম, প্রিয় বন্ধুরা আমাদের আজকের আলোচনা আমি প্রবাসী Ami Probashi বিষয়টি নিয়ে। আমরা এখানে আলোচনা করব আমি প্রবাসী সংক্রান্ত বিষয়াবলী যেমন বিএমইটি কার্ড, ক্লিয়ারেন্স কার্ড, ট্রেনিং সার্টিফিকেট, করোনা ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন, ভ্যাকসিন কার্ডের ভুল তথ্য আসলে করনীয় কি, সার্টিফিকেট ডাউনলোড, বিদেশ যাওয়ার পূর্বের প্রস্তুতি ও করণীয়, বিআইএমটি, আইএমটি ও কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সমূহের তালিকা সম্পর্কে।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মধ্যে সমঝোতা স্মারক ও পরিষেবা চুক্তি সম্পন্ন হওয়ার পর ২০২১ খ্রি: সনের মে মাসে ‘আমি প্রবাসী’ সেবা আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে।

প্রবাস গমনে ইচছুক ব্যক্তিদের জন্য ঘরে বসে অনায়াসেই সরকার নির্ধারিত নানা প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার সুযোগ তৈরির পাশাপাশি প্রবাসে বৈধভাবে চাকরির খোঁজ-খবর, কর্মী ট্রেনিং সেন্টারে ভর্তির আবেদন ইত্যাদি ফিচার সহজলভ্য করার মাধ্যমে ‘আমি প্রবাসী’ অভিবাসন প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা ও নিরাপত্তা দিয়ে যাচ্ছে।

বিএমইটি কার্ড (BMET CARD)

প্রবাসে যেতে আগ্রহী কর্মীদের জন্য সর্ব প্রথম ও বাধ্যতামূলক ধাপ হচ্ছে সরকারি বিএমইটি ডাটাবেজে রেজিস্ট্রেশন করা। রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হওয়ার পর, ব্যবহারকারী একটি বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন কার্ড পাবেন। এতে রয়েছে একটি বিএমইটি Identification নম্বর (BIDN) এবং রেজিস্ট্রেশনকৃত ব্যক্তির প্রয়োজনীয় তথ্যসমূহ। বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন কার্ডটি আমি প্রবাসী (Amiprobashi)  অ্যাপস্ ব্যবহারকারীগণ তাদের ডিভাইসে সংরক্ষণ করতে পারেন অথবা আমি প্রবাসী ওয়েবসাইট থেকে ও কার্ডটি ডাউনলোড করতে পারেন। এজন্য রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়ার সময় ব্যবহৃত বৈধ পাসপোর্ট নম্বরটি প্রদান করতে হবে।

আমি প্রবাসী সার্টিফিকেট 

প্রশিক্ষণার্থীরা সফল ভাবে PDO ট্রেনিং শেষ করার পর আমি প্রবাসী অ্যাপ অথবা ওয়েবসাইট ব্যবহার করে আর কিউ কোর্ড সম্বলিত সার্টিফিকেট ডাউনলোড করতে পারবেন। সার্টিফিকেট ডাউনলোড করার জন্য প্রশিক্ষণার্থীদের পিডিও রেজিস্ট্রেশনের সময় ব্যবহৃত বৈধ পাসপোর্ট নম্বর প্রদান করতে হবে। আপনি চাইলে নিচের লিংকে থেকেও সার্টিফিকেট ডাউনলোড করতে পারবেন

পিডিও সার্টিফিকেট ডাউনলোড করতে আপনার বৈধ পাসপোর্ট নম্বর প্রদান করুন:

 ডাউনলোড লিংক :

https://amiprobashi.com/download-certificate-bn.html

বিদেশ যাওয়ার পূর্বের প্রস্তুতি ও করণীয়

  • বৈধভাবে বিদেশ যাবার জন্য সর্বপ্রথম আপনি পাসপোর্ট করুন।
  • প্রথমে হিসাব করুন প্রবাসে যাওয়ার পর লাভ বা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন কি না? তারপর প্রবাসে গমনের ব্যাপারে দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিন।
  • আপনি যে দেশে যেথে ইচ্ছুত সেই দেশের ভাষার উপর প্রশিক্ষণ নিন।
  • সারা বাংলাদেশের চল্লিশটি টিটিসিতে (TTC) প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতায় বিএমইটি ভাষা প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।
  • আপনার পছন্দ ও দক্ষতা অনুযায়ী কাজের প্রশিক্ষণ নিন।
  • ভালোমত পড়ে এবং বুঝেশুনে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর (দস্তখত) করুন।
  • বিদেশ যাওয়ার পূর্বেই প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্রের ৩ (তিন) সেট ফটোকপি করুন। এক সেট বাড়িতে সংরক্ষণ করুন।
  • বিএমইটির স্মার্ট কার্ড গ্রহণ করুন।
  • বিদেশ যাওয়ার পূর্বে অনুমোধীত যে কোন ব্যাংকে আপনার নামে ব্যাংক হিসাব খুলু্ন।
  • বিদেশ যাওয়ার পূর্বে ৩ (তিন) দিনের প্রাক বর্হিগমন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহন করুন।
  • সংশ্লিষ্ট DEMO অফিসে ফিঙ্গার প্রিন্ট বা আঙ্গুলের ছাপ দিতে হবে।
  • অনুমোদিত মেডিকেল সেন্টারে আপনার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান।

বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন ফি কিভাবে পেমেন্ট করা যায়

আমি প্রবাসী অ্যাপে পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের সফল হওয়ার পর নগদ অথবা বিকাশ দিয়ে পেমেন্ট করতে হবে।

বিআইএমটি, আইএমটি ও কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) সমূহের তালিকা

আমরা প্রতিনিয়ত প্রবাসে যাওয়ার জন্য কারিগরি শিক্ষা নিতে আগ্রহী থাকি। এজন্য আমাদের BIMT অথবা IMT ও কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্রের খোঁজ করে থাকি, আপনাদের সুবিধার্তে আমরা সারা বাংলাদেশের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সমূহের ঠিকানা, মোবাইল নম্বর ও ইমেইল এর তথ্য প্রদান করলাম-

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালদের অধীন জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো এর আওতাে পরিচালিত প্রশিক্ষণ প্রশতষ্ঠানসমূহ দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন:

প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ঠিকানা: amiprobashi

করোনা ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন

আমি প্রবাসী অ্যাপ বিদেশে গমনে আগ্রহীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনার টিকা প্রাপ্তিতে সবসময় পাশে থাকে। এজন্য BMET রেজিস্ট্রেশন থাকা বাধ্যতামূলক। আপনি কিভাবে কারো সাহায্য ছাড়াই নিজে নিজে বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন তা শিখিয়ে দেব । সহজ কিছু ধাপ পেরিয়ে নিজেই করতে পারবেন করোনা টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশনঃ

  • প্রথমেই আপনার স্মার্ট ফোনের গুগল প্লে স্টোর থেকে Ami Probashi এ্যাপস সার্চ করে ইন্সটল করুন।
  • ইনস্টল করবার পর অ্যাপটি অপেন করুন।
  • এরপর আপনার মোবাইল নম্বর অথবা ইমেইল আইডি দিয়ে লগইন করুন।
  • আপনার মোবাইল অথবা ই-মেইলে একটি ভেরিফিকেশন কোড আসবে। সেটি দিয়ে ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করুন।
  • অ্যাপের উপরের বাম দিকে বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন ট্যাপ করুন।
  • আপনার পাসপোর্টের PERSONAL DATA ও EMERGENCY DATA পাতা দুইটি স্ক্যান করে অথবা প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে বিএমইটি রেজিস্ট্রেশনের আবেদন সম্পন্ন করুন।
  • বিকাশ অথবা নগদের মাধ্যমে বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন ফি বাবদ ৩০০ (তিনশত) টাকা পেমেন্ট করুন।
  • অনলাইন পেমেন্ট সম্পন্ন হবার পর পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের জন্য সর্বোচ্চ ৭২ ঘন্টা সময় সময় নিতে পারে।
  • ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হলে আপনি একটি বিএমইটি নাম্বর পাবেন।
  • বিএমইটি নম্বর পাওয়ার পর আমি প্রবাসী অ্যাপে ভ্যাকসিনের নিবন্ধন ট্যাপ করে সুরক্ষা (www.shurokkha.gov.bd) অ্যাপে প্রবেশ করুন।
  • এরপর সুরক্ষা অ্যাপের উপরে ডানে মেন্যুবারে গিয়ে নিবন্ধন (পাসপোর্ট)-এ যেয়ে যাবতীয় তথ্য দিয়ে করোনা টিকার নিবন্ধন সম্পন্ন করুন।

বি:দ্র: আমি প্রবাসী অ্যাপস্ এর মাধ্যমে সরাসরি করোনা ভ্যকসিনের  জন্য রেজিস্ট্রেশন করা যায় না।

সতর্কতা

♣ মনে রাখবেন, মেয়াদোত্তীর্ণ পাসপোর্ট দিয়ে বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন করা যাবে না।

♣ প্রয়োজন হলে বিএমইটি রেজিস্ট্রেশনের পূর্বে আপনার মেয়াদোত্তীর্ণ পাসপোর্ট হালনাগাদ করে নিবেন।

পাসপোর্ট যাচাই-বাচাই করতে আমি প্রবাসী কোন তথ্যগুলো চেয়ে থাকে

আপনার পাসপোর্ট যাচাই করতে যে তথ্যগুলো চেয়ে থাকে তা হলো: ইংরেজিতে পুরো নাম, জন্ম তারিখ, লিঙ্গ, পিতার নাম, মাতার নাম, স্বামী/স্ত্রীর নাম (যদি থাকে), পাসপোর্ট নম্বর, পাসপোর্ট ইস্যুর তারিখ, পাসপোর্টের মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ, বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা।

Ami Probashi App 

আমি প্রবাসী অ্যাপটি প্রবাসী বাংলাদেশীদের জন্য একটি প্রয়োজনীয় তথ্য ও প্রবাসী সেবামূলক অ্যাপ। প্রবাসে গমনের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মূলক সেবা দেশের জনগণের জন্য ডিজিটালাইজড ও সহজ করতে ৮ মে ২০২১ খ্রি: সালে আমি প্রবাসী অ্যাপ চালু করা হয়।

বর্তমানে আমি প্রবাসী অ্যাপের মাধ্যমে বিদেশে গমনের সকল তথ্য ও সেবা পাওয়া যাচ্ছে হাতের মুঠোয়। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে আপনার হাতে থাকা স্মাট ফোনের প্লে স্টোর থেকে Ami probashi সার্চ করে ডাউনলোড করতে পারবেন।

ভ্যাকসিন কার্ডে তথ্য ভুল আসলে করণীয়

করোনা ভ্যাকসিন কার্ডে অনেক সময় আমাদের তথ্য ভুল হয়ে থাকে। যখন এই সমস্যায় আমরা পতিত হই তখন অনেক ভুগান্তিতে আমাদের পড়তে হয়। এই সমস্যার সম্মুখীণ হলে অনুগ্রহ করে জেলা অফিসের সুরক্ষা অ্যাপ কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করুন। আমি প্রবাসী কর্তৃপক্ষের সাথে সুরক্ষা অ্যাপ কর্তৃপক্ষের সরাসরি কোন সম্পর্ক নেই। আমি প্রবাসী অ্যাপ এর মাধ্যমে প্রবাসীরা বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে যা তাদেরকে সুরক্ষা অ্যাপ এ ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশনের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দিবে।

শেষকথা:

আমাদের জিবিকার তাগিদে বিদেশ যাওয়া প্রয়োজন হয়। আমাদের দেশ থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ প্রবাসে গিয়ে থাকেন। অকেন সময় ভিটা-মাটি বিক্রি কয়ে অনেকে প্রবাসে যান। সঠিক পদ্ধতি জানা না থাকার কারনে আমরা বিভিন্ন ধরনের দালাল চক্রের মাধ্যমে কাজ করিয়ে থাকি, কখনও কখনও আমাদের টাকা পয়সা লোকসানও হয়। কেউ কেউ হারান সবকিছু। আমার সবসময় আমি প্রবাসী Ami Probashi এর মাধ্যমে সঠিক পদ্ধতি জেনে বুঝে তারপর কাজ শুরু করব। আশা করছি আমাদের এই পোস্টটি কিছুটা হলেও আপনাদের উপকারে আসবে।