তামাবিল এর সৌন্দর্য্য – সিলেট

মাবিল (Tamabil) হচ্ছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের ঘেরা সিলেট শহরের সিলেট-শিলং সড়কের একটি সীমান্ত চৌকি। সিলেটের অন্যতম দর্শনীয় স্থান গুলোর নামের তালিকা প্রণয়ন করলে, তাতে তামাবিল এর নাম উঠে আসে সহজেই। এর চারপাশে সবুজে ঘেরা অনেক পাহাড়-পর্বত রয়েছে। আর সেগুলোর মাঝে রয়েছে স্বচ্ছ পানির লেক ও ঝর্ণা। তামাবিল এর সৌন্দর্য্য মন্ডিন স্থানটি সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় অবস্থিত। এটি জাফলং জিরো পয়েন্ট নামেও পরিচিত।

সিলেটের জাফলং রোড ধরে এগিয়ে যেতে থাকলে জাফলং এর ৫ কিলোমিটার পূর্বেই তামাবিল দেখতে পাওয়া যাবে। এটি বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ার কারণে, সেখান থেকে বাংলাদেশ ও ভারত দু দেশের অপার সৌন্দর্য উপভোগ করা যায়।

তামাবিল যাওয়ার পথে রয়েছে আঁকা বাঁকা ছোট-বড় রাস্তা, রয়েছে বিশাল বিশাল পাহাড় ও ঝর্ণা। সেখানে আরো রয়েছে দুধের মতো সাদা পানি অথবা স্বচ্ছ পানির স্রোত। এই দৃশ্য গুলো খুবই মনোমুগ্ধকর যা আপনাকে মুগ্ধ করবে। এসব মনোমুগ্ধকর দৃশ্য গুলো দেখার জন্য প্রতিদিন শত শত পর্যটকরা এসে ভিড় জমায় এই সীমান্তে।

তামাবিল এর অবস্থান

সিলেটের সীমান্তবর্তী গোয়াইনঘাট উপজেলায় অবস্থিত তামাবিল। এটি বাংলাদেশের সিলেট শহর থেকে ৫৪ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। তামাবিল হচ্ছে সিলেট-শিলং সড়কের একটি সীমান্ত চৌকি। এটি বাংলাদেশ এবং ভারতের মেঘালয় রাজ্যের মাঝামাঝিতে অবস্থিত। এর দূরত্ব শিলং থেকে ৮২ কিলোমিটার এবং ঢাকা থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার।

তামাবিল এর সৌন্দর্য্য | তামাবিল কেনো বিখ্যাত?

বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী এলাকা তামাবিল হওয়ায় এপার ও ওপার দু’দেশেরই দৃশ্য দেখা যায়। সিলেটের অন্যতম প্রধান দর্শনীয় স্থান গুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে তামাবিল। এখান থেকে বাংলাদেশের ঝর্ণা, পাহাড়, পর্বত দেখা যায়। ভারতেরও ঝর্ণা, পাহাড়, পর্বত দেখা যায়, এগুলোকে বিকেল বেলায় গোধূলির সময় দেখতে অনেক অসাধারণ লাগে। তামাবিল সীমান্তে এসব দৃশ্য দেখার জন্য প্রতিদিন শত শত দর্শনার্থী এসে ভির জমায়। আর এজন্যই তামাবিল বিখ্যাত।

তামাবিল স্থলবন্দর

তামাবিল
তামাবিল

সিলেটের গোয়াইনঘাট সীমান্ত এলাকায় অবস্থিত তামাবিল স্থল বন্দর ২০১৭ সালের ২৭ শে অক্টোবর উদ্ভোধন করা হয়ছিল। এই স্থলবন্দরের মাধ্যমে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য মেঘালয়, নাগাল্যান্ড, মনিপুর ও আসামসহ অন্যান্য রাজ্যের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য বৃদ্ধি করা সম্ভব হয়েছে।

ভারত থেকে কয়লা, সাদা পাথর সহ অন্যান্য পাথর ভর্তি সারি সারি ট্রাক বাংলাদেশে আসে এই স্থলবন্দর দিয়ে। এগুলো ভারত থেকে আমদানি করা হয়। পরবর্তীতে এগুলো সারা বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় স্থল পথের মাধ্যমে সরবরাহ করা হয়।

তামাবিল সীমান্তের সাথে ভারতের কোন শহরটি অবস্থিত?

বাংলাদেশের সিলেটের গোয়াইঘাটের তামাবিল এর সৌন্দর্য্যমন্ডিত সীমান্তের স্থল বন্দরটি ভারতের মেঘালয় প্রদেশের ডাউকি অঞ্চল ঘেঁষে অবস্থিত। আর বেনাপোল স্থল বন্দরটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পেট্রোপোল সীমান্তের সাথে যুক্ত।

কিভাবে যাবেন

দেশের বিভিন্ন স্থান হতে সিলেট আসা যায়। সিলেটে বাস, ট্রেনে ও বিমানে ভ্রমণ করা যায়। তবে ট্রেনে ভ্রমণ করা বেশ আরামদায়ক। ট্রেনে যেতে চাইলে কমলাপুর রেল ষ্ট্রেশন গিয়ে কামরা ভাড়া করে গেলে আরামে যাওয়া যায়। বাসে গেলে গ্রীনল্যান্ড ও সোহাগ পরিবহনে সিলেটে ভ্রমণ করা যায়।

সিলেট থেকে তামাবিল কিভাবে যাবেন:

সিলেট শহরের যেকোন স্থান থেকে জাফলংগামী বাহনে তামাবিল যেতে পারবেন। এছাড়া লোকাল বাসে তামাবিল যেতে চাইলে প্রথমে সিলেট শহরের শিবগঞ্জে আসতে হবে, সেখান থেকে জনপ্রতি ৮০ টাকা ভাড়ায় তামাবিল যেতে পারবেন। অটোরিকশা বা সি.এন.জিতে তামাবিল যেতে ১২০০ থেকে ২০০০ টাকার মত ভাড়া লাগবে। আর মাইক্রোবাস সারাদিনের জন্যে রিজার্ভ নিলে ভাড়া লাগবে ৩০০০ থেকে ৫০০০ টাকা।

থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা

সিলেট শহরের মাজার রোডের একদম মাথায়  আম্বর খানা মোড়ে থাকার জন্য একটা ভালো মানের হোটেল রয়েছে। ২ বেডরুম (৪ বেড) এর জন্য ৭০০ টাকা ভাড়া। নিচেই খাবার দোকান। দোকানের গ্রিল চিকেন এর স্বাদ ভালো। এছাড়া খাওয়ার জন্য কাছেই জিন্দাবাজারে অনেক রেস্টুরেন্ট রয়েছে। এসব রেস্টুরেন্টএর খাওয়ার দাম এবং স্বাদ দুটোই ভালো।

তামাবিল এর আশপাশের দর্শনীয় স্থান

তামাবিল ভ্রমণ এর পাশাপাশে আরও বেশ কিছু ভ্রমণ উপযোগী ও দর্শনীয় স্থান রয়েছে। যেমন- লালাখাল, ভোলাগঞ্জের সাদা পাথর, তামাবিল, জৈন্তাপুর, সংগ্রামপুঞ্জি ঝর্ণা বা মায়াবী ঝরনা, রাতারগুল, শাপলা বিল ইত্যাদি দর্শনীয় স্থান।

গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রশ্ন Faq’s

তামাবিল কোথায় অবস্থিত?
সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় তামাবিল অবস্থিত।

তামাবিল সীমান্তের সাথে ভারতের কোন শহরটি অবস্থিত?
সিলেটের গোয়াইঘাট উপজেলার তামাবিল সীমান্তের স্থলবন্দরটি ভারতের মেঘালয় প্রদেশের ডাউকি অঞ্চল ঘেঁষে অবস্থিত।

বাংলাদেশে কয়টি স্থলবন্দর আছে?
বাংলাদেশে বর্তমানে ২৫ টি স্থলবন্দর আছে ।

বাংলাদেশের প্রধান স্থলবন্দর কোনটি?
ভারতের সীমান্তবর্তী বাংলাদেশের একটি পৌরশহর হলো বেনাপোল। বেনাপোলে দেশের প্রধান এবং সবচেয়ে বড় স্থলবন্দর অবস্থিত।

শেষকথা

তামাবিল বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী এলাকায় হওয়ায় এখান থেকে সরাসরি ভারতের উচঁ উচুঁ পাহাড়, পর্বত, ঝর্ণা, জলপ্রপাত দেখা যায়। সীমান্তের ওপারে অনেক গুলো জলপ্রপাত রয়েছে এই জলপ্রপাত গুলো বিকাল বেলা ও গোধূলির সময় দেখতে বেশ চমৎকার লাগে। নয়নাভিরাম তামাবিল এর সৌন্দর্য্য এর দৃশ্য দেখতে প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শনার্থী ভিড় জমায় তামাবিল সীমান্তে।